ভোলার বৈরাগী চরে মহিষ মালিকদের কাছে আতঙ্কের নাম রুবেল।

0
109

দৈনিক ভোলা সময় নিউজ।

বিশেষ প্রতিনিধ, ইকবাল হোসেন রাজু

দ্বীপ জেলা ভোলার দৌলতখান উপজেলার বৈরাগী চরে একাদিক মালিকরা রাখাল দিয়ে কয়েক হাজার মহিষ, গরু ও ছাগল ভেড়া লালন পালন করেন।

দীর্ঘ বছর চরে রাখালরা গরু মহিষ লালন পালন করেন কখনো কোন সমস্যার মুখোমুখি হয়নি হঠাৎ গত তিন বছর পূর্ব থেকে মহিষ মালিকদের কাছে আতঙ্কের নাম হয়ে দাঁড়ায় সদর উপজেলা রাজাপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মোজাম্মেল বয়াতির ছেলে ওই চরের কৃষক রুবেল।

মহিষের রাখালরা জানান, গত বছর থেকে রুবেল এর দ্বারা একাদিক মহিষ জখম হয়েছে।
মোঃ নাগর নামের এক রাখাল বলেন, রুবেল এর একটি ঘর রয়েছে বৈরাগী চরে, ওই ঘরের আশেপাশে কোন মহিষ গেলেই রুবেল ও তার সহযোগীরা মহিষ কে দা দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে।

এ নিয়ে একাদিকবার মালিকপক্ষ প্রথমে ফয়সালা পরে থানা পুলিশ পর্যন্ত গেলে কিছুদিন চুপ থেকে হঠাৎ বেপরোয়া হয়ে উঠেন রুবেল।

গতকাল ২৮ জুলাই গভীর রাতে কোন কারণ ছাড়াই আবুল কাশেম মাষ্টারের একটি মহিষ রুবেলের বাসার পাশে গেলে মহিষটিকে কুপিয়ে মারাত্মক জখন করে,
এনিয়ে আবুল কাসেম মাষ্টারের দুইটি মহিষকে কুপিয়ে জখম করে।

এদিকে তিন বছর আগে কসাইগো কিল্লার নিজামের একটি মহিষকে কুপিয়ে জখম করলে থানায় মামলাও করেন নিজামের বাবা,

এবিষয়ে জখম হওয়া মহিষের মালিক আবুল কাশেম মাষ্টারের ছেলে মাসুম জানান এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এদিকে অভিযুক্ত রুবেল এর সাথে যোগযোগ করার জন্য একাদিকবার চেষ্টা করলেও তাকে পাওয়া যায়নি,

পূর্ববর্তী খবরকর্মস্থলে পোঁছতে ইলিশাঘাটে রাজধানী মুখি যাত্রীদের ভিড়।
পরবর্তী খবরতজুমদ্দিনে শেখ কামালের ৭২তম জন্মবার্ষিকী পালিত।