ভোলায় বড় ভাইয়ের ভাড়াটিয়া বাহিনী দিয়ে ছোট ভাইকে পেটানোর অভিযোগ।

0
23

ভোলা সময় নিউজ।

ভোলায় বড় ভাইয়ের ভাড়াটিয়া বাহিনী দিয়ে ছোট ভাই কে পেটানোর অভিযোগ।

মোঃ পারভেজ ভোলা প্রতিনিধি

ভোলায় আপন ছোট ভাই কে ভাড়াটিয়া বাহিনী দিয়ে পিটিয়ে আহত করলেন পাষণ্ড এক বড় ভাই।
বর্তমানে আহত সাগর (৩৩) ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
চিকিৎসাধীন সাগর বলেন,আমার বাড়ী ইলিশা ৬নং ওয়ার্ডে আমার বাবার নাম মালেক জমাদার, গত রবিবারের আমার বড় ভাই ইউনুস জমাদারের স্ত্রী’র সাথে আমার ঝগড়া হয়।
পরে আমার শ্বশুরসহ স্থানীয় গণ্যমান্য লোকজন আমাকে আমার ভাবির কাছে ক্ষমা চাইতে বলে পরে আমি ক্ষমা চাইতে গেলে তারা আরো উত্তেজিত হয়ে, আমাকে মারধর করলে আমি চলে আসি।
এর পরেই আমার ভাইয়ের শ্যালক রাছেল আমার ভগ্নীপতি নুরুউদ্দিন লোকজন নিয়ে আমাকে আমার এলাকা থেকে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে আসে ভোলায়।
ভোলার একটি বাসায় আমাকে নিয়ে স্ট্যাম্পে সই দিতে বলে,আমি দিতে না চাওয়ায় আমাকে পিটিয়ে অজ্ঞান করে পেলে, পরে আমার স্ত্রী ও আত্মীয়-স্বজনরা থানায় জানালে পুলিশ আমার ভাই ভাবি কে চাপপ্রয়োগ করলে আমাকে আবার বাসায় অজ্ঞান অবস্থায় রেখে যায়।
পরে স্থানীয় ভাবে আমাকে চিকিৎসা দেওয়া হয় এখন মাথার সমস্যা বেশি তাই আবার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছি।
এদিকে ঘটনার বিষয়ে ইলিশা রাস্তার মাথা এলাকায় এই প্রতিবেদক ঘটনার সত্যতা জানতে গেলে স্থানীয়রা জানান, ইউনুস আর সাগরের সাথে পারিবারিক বিরোধ চলে আসছে এটা আমরা জানি তবে তাকে উঠিয়ে নিয়ে গেছে এটা অনেকই জানেন না তবে সাগর কে তার ভাই ভাবি মারধর করেছে এটা সবাই জানে।
এই বিষয়ে ইউনুছ জমাদারের রাস্তার মাথার দোকানে গিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি এবং ফোন দিলেও পাওয়া যাইনি।
এই বিষয়ে ভোলা সদর থানার এস আই কাজল মিয়া বলেন,ভাই ভাই মারামারি করে সাগর কে পাওয়া যাচ্ছে না মর্মে একটি অভিযোগ করেছেন পরে আমি ঘটনাস্থলে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর সাগর কে পাওয়া গেছে।
সাগর কে চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলছি।

পূর্ববর্তী খবরভোলায় বড় ভাইয়ের ভাড়াটিয়া বাহিনী দিয়ে ছোট ভাইকে পেটানোর অভিযোগ।
পরবর্তী খবরভোলায় কেককাটা ও দোয়া মোনাজাতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হলো ভোলা প্রতিদিনের তৃতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী।