বোরহানউদ্দিনে স্ত্রী কর্তৃক প্রবাসী স্বামীর সকল সঞ্চিত অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ।

0
102

বিশেষ প্রতিনিধ মোঃ সাদমান সায়েম।

ভোলা জেলার বোরহানউদ্দিন  উপজেলায় স্ত্রী আকলিমার(৩০) বিরুদ্ধে  টাকা আত্মসাৎ এর অভিযোগ। বিগত ১০/০৭/২০২৩ ই তারিখে মোসাঃআকলিমা পিতা অলিউল্লাহ সাং মধ্যম বড় পাতা কোঠবাড়ী দেউলা এর সাথে মোঃ মিরাজ(৫২) মৃত আব্দুল মান্নান সাং উদয়পুর ৩ নং ওয়ার্ড পক্ষিয়ার সাথে দেড় লক্ষ টাকা দেনমোহর ধার্য করিয়া শুভ বিবাহ হয়। 

উক্ত বিবাহের আগ থেকেই স্বামী  মিরাজ প্রবাস  জীবন যাপন করতেন। আকলিমাকে বিবাহর পর তাঁর সংসারে তিন সন্তান জন্মগ্রহণ করে। 

ঘটনার বিবরনে জানা যায় বিগত ০৮/০৯/২০২৩ ইং তারিখে আকলিমা পরকীয়ার জেরে স্বামীর বাসা ত্যাগ করে।ফলশ্রুতিতে চলমান মামলা (সি আর  নং ২৬৯ /২৩) বোরহানউদ্দিন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত। 

মিরাজের ভাষ্যমতে তার প্রবাস জীবনের সমুদয় সঞ্চিত টাকা,  স্বর্ণালংকার, পাসপোর্ট নিয়ে ০৮/ ০৯ /২০২৩ ইং তারিখে আকলিমা অন্য লোকের হাত ধরে চলে যায়।যাওয়ার সময় ঘরের মূল্যবান মালামাল ও নিয়ে যায় ।আকলিমা বোরহানউদ্দিন জনতা ব্যাংক শাখা এবং ইসলামী ব্যাংক শাখা হতে  ০৮/০৯/২০১৩  তারিখ হতে ১৭/০৪/২০২১ সাল পর্যন্ত,বিদেশ থেকে পাঠানো টাকা নিয়ে যায়। টাকার বিবরন, ২৪ লাখ ৩৪ হাজার ৫৩ টাকা এবং আরো ১০ লক্ষ টাকা  নগদ টাকা (মামলার কাগজে বিদ্যমান), আকলিমা নিয়ে পালিয়ে যায়। ফলে আমি মামলা করি। সে ফোনে অন্য ছেলের সাথে পরকীয়া করত। আমি বছরের দুই  বার বিদেশ থেকে বাড়ি আসতাম। আমার বাড়ি না থাকার সুযোগে অন্য ছেলের সাথে ফোন আলাপে লিপ্ত হয়। 
প্রশাসন এবং দেশবাসীর কাছে আমি আমার স্ত্রীর এই কুকর্মের বিচার চাই এবং আমার সন্তানদের ফেরত চাই। 

এই প্রসঙ্গে  স্ত্রী আকলিমার  কাছে প্রত্যক্ষভাবে জানতে চাওয়া হলে সে বলে, আমার স্বামী 
আমার উপরে পরকীয়া, টাকা পয়সা স্বর্ণালংকার সহ যত অভিযোগ করেছে তা সকলই মিথ্যা এবং বানোয়াট ।

এই খবর প্রকাশ অব্দি  এখন পর্যন্ত কোন সালিশ মীমাংসা হয়নি  তবে দুই পক্ষের মামলা চলমান। 

পূর্ববর্তী খবরভোলায় আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ ও উন্নয়ন শোভাযাত্রা।
পরবর্তী খবরবিএনপিতে এখন নেতৃত্বের দূর্ভীক্ষ চলছে ভোলায় ড. শান্ত।